10 টি লাইফ চেঞ্জিং প্রযুক্তি হ্যাক যা আপনি ১০ মিনিটের ভিতর শিখতে পারবেন।

এখানে টেকজোয়া এ, আমরা ভালোবাসি আপনাদের সাথে টিপস, ট্রিকস এবং হ্যাকস শেয়ার করতে যেগুলো আপনাকে আরো প্রোডাকটিভ করতে পারে এবং আরো নানান রকম নতুন প্রযুক্তি খবরা-খবর জানতে পারবেন। আজকে আমরা যেই ট্রিক এবং হ্যাক গুলো শেয়ার করবো। এগুলো আপনার এবং আপনার বন্ধু দের অসাধারণ লাগতে পারে।

তাই আর কোন ঝামেলা ছাড়াই, 10 টি আশ্চর্যজনক প্রযুক্তি হ্যাক যা আপনি 10 মিনিটের মধ্যে শিখতে পারবেন।

10 টি লাইফ চেঞ্জিং প্রযুক্তি হ্যাক!

১.সম্পূর্ণ ইউটিউব প্লে-লিস্ট ডাউনলোড করুন।

ইউটিউব থেকে ভিডিও এক এক করে ডাউনলোড করার খুবই কষ্টসাধ্য হয়ে যায়। আপনি যদি ইউটিউব থেকে প্রচুর ভিডিও ডাউনলোড করেন। তাহলে এই ট্রিক টি আপনার ১০০% কাজের। যদি আমি আপনাকে বলি আপনি ১ ক্লিকে আপনার সবগুলো পছন্দের ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন। কি বিশ্বাস হচ্ছে না?
এর জন্য আপনার যা করতে হবে। আপনার ইউটিউবে একটি প্লেলিস্ট তৈরি করতে হবে বা আপনি অন্যকোনো playlist দিয়েও এই কাজটি করতে পারবেন। আপনি যদি নিজের পছন্দমত ভিডিও ডাউনলোড করতে চান। এর জন্য আপনার সেই সকল ভিডিও দিয়ে একটি প্লেলিস্ট তৈরি করতে হবে। এরপর আপনি ওই প্লে-লিস্টে url লিঙ্কটি কপি করে নিন।
সম্পূর্ণ ইউটিউব প্লেলিস্ট ডাউনলোড করুন

এখন “4K ভিডিও ডাউনলোডার” ডাউনলোড করুন। “Paste Link” এ ক্লিক করুন, আপনার পছন্দের লোকেশন, ভিডিও ফরমেট, এবং কোয়ালিটি সিলেক্ট করে এবং সেই প্লেলিস্টের সমস্ত ভিডিও ডাউনলোড করুন।
4K ভিডিও ডাউনলোডার

২.আপনার দেশে ব্লক করা ওয়েবসাইট একসেস করুন।

এই আশ্চর্যজনক “হোলা বেটার ইন্টারনেট” ক্রোম এক্সটেনশন ইনস্টল করুন। একেক ক্লিকের মাধ্যমে, হোলা বেটার ইন্টারনেট আপনাকে ভৌগোলিক ফায়ারওয়ালকে বাইপাস করার অনুমতি দেয়, এর মানে হল যে আপনি সেইসব ওয়েবসাইটগুলি অ্যাক্সেস করতে পারেন যা আপনার দেশে অবরুদ্ধ বা সেন্সর করা আছে। এটি একটি ফ্রি এবং বিজ্ঞাপন মুক্ত ভিপিএন প্রক্সি সার্ভিস যা দ্রুত এবং আরো খোলা ইন্টারনেট সার্ভিস প্রদান করে।
hola

DISCLAIMER: যদিও এই এক্সটেনশনটি আপনি যে কোনও সাইটকে আপনার দেশতে যেকোনো ব্লক করে সাইট ওপেন করতে পারবেন, যদি আপনি এটি করেন তবে আমরা আইটি এর কোনও আইনি বিশ্লেষণের জন্য দায়ী নই।

৩. Windows 10 গড মোড।

গড মোডটি উইন্ডোজ 10 এর সেরা বৈশিষ্ট্যগুলির মধ্যে একটি। এটি একটি লুকানো ফোল্ডার যা আপনার পিসির জন্য সহজ কাস্টমাইজেশনের একটি পরিসীমা উপলব্ধ করে। সেরা অংশ এটি ইনস্টল করা সহজ এবং খুবই সহজ:)। গড মোড এর গুলো হলো এর মাধ্যমে আপনি সহজে innumerable features on Windows, customization options, all in a single interface আরো নানারকম ফিচার দিয়ে থাকে। এইটা সব ফিচার গুলো খুব সুন্দর করে সাজিয়ে রেখেছে।
windows 10 god mode
এখন কথায় আসি আপনি এটি কিভাবে খুঁজে পাবেন বা কিভাবে ইনস্টল করবেন? এটি ইনস্টল করতে আপনার কম্পিউটারের যে কোন জায়গায় একটি ফোল্ডার তৈরি করুন এবং ফোল্ডার এর নাম দেবেন নিচে দেয়া টেক্সট গুলো তাহলেই ইনস্টল হয়ে যাবে।

GodMode.{ED7BA470-8E54-465E-825C-99712043E01C}

“GodMode.” এটি সহ দিবেন তা না হলে কাজ করবে না। যখন আপনি এই নাম দিয়ে ইন্টার এ প্রেস করবেন। তখন আপনার ফোল্ডার এর আইকন সি-প্যানেল এর আইকন এর মতো দেখাবে। এখন এই ফোল্ডার ওপেন করলে আপনি নানান রকম কাস্টমাইজেশন এর অপশন দেখতে পাবেন।

৪. লোড Subtitle ফাইল অটোমেটিক্যালি।

আপনি কি Subtitle দিয়ে মুভি দেখেন? যদি দেখেন তাহলে আপনি জানেন যে আপনার প্রতিবার Subtitle লোড করে তার পর মুভি দেখতে হয়। এখন থেকে আপনি যখন সিনেমাটি চালাবেন তখন আপনাকে Subtitle লোড করতে হবে না, কিভাবে? শুধু সাবটাইটেল ফাইলটি পুনঃনামকরণ করুন (.srt ফাইল) এই দিকে খেয়াল রাখবেন যেন মুভির নাম এবং সাবটাইটেলের নাম একই হয়এবং দুটি ফাইল same ফোল্ডারে রাখতে হবে। এরপর আপনি যখন মুভিটি ওপেন করবেন অটোমেটিক্যালি subtitle লোড হয়ে যাবে।

 

আরো পড়ুন:  কিভাবে একটি উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমে ল্যাপটপ ব্যাটারি হেলথ পরীক্ষা করবেন?

৫. অটোমেটিক্যালি টরেন্ট ডাউনলোড করুন।

যদি এমন হতো আপনি পৃথিবীর যেকোন স্থান থেকে আপনার কম্পিউটারে টরেন্ট থেকে ডাউনলোড করতে পারতেন অটোমেটিক্যালি! হ্যা, এটা সম্ভব ড্রপবক্স এটাকে সংযোগ করে দেখিয়েছে।
এরজন্য ড্রপবক্স ইনস্টল করুন এবং আপনার হোম কম্পিউটারে যে কোনও টরেন্ট ক্লায়েন্ট ইনস্টল করুন।আপনার টরেন্ট ক্লায়েন্ট খুলুন এবং অপসন >> প্রেফারেন্সেস যান। এখন “Automatically load .torrents from:” এনাবেল করে দিন এবং নিচে আপনার কম্পিউটার এর ড্রপবক্স লোকাল ফোল্ডার সিলেক্ট করে দিন ব্যাস আপনার কাজ শেষ।

Download Torrents Automatically
Download Torrents Automatically

এখন থেকে, আপনার যা করতে হবে তা কেবল আপনার ফোনের বা অন্য যেকোন ডিভাইসে। ফাইলটি ডাউনলোড করে আপনার ড্রপবক্স অ্যাকাউন্টে আপলোড করুন। এইগুলি অটোমেটিক্যালি এই টর্রেন্ট এর ফাইলগুলি আপনার হোম কম্পিউটারে ডাউনলোড শুরু হয়ে যাবে।

Download Torrents AutomaticallyDownload Torrents Automatically
Download Torrents Automatically

৬.স্প্যাম এড়িয়ে চলার জন্য নিষ্পত্তিযোগ্য অস্থায়ী ইমেল পরিষেবা ব্যবহার করুন।

এইমুহূর্তে ইন্টারনেট স্প্যাম দিয়ে ভরা। যদি আপনি নিশ্চিত থাকেন যে আপনি যে ওয়েবসাইটটি সাইন ইন করছেন, সেটি শুধুমাত্র আপনাকে স্প্যাম করবে। তাহলে এই বিনামূল্যে নিষ্পত্তিযোগ্য অস্থায়ী ইমেল সেবা ব্যবহার করতে পারেন। এই সাইট গুলো আপনাকে প্রতিবার একটি রান্ডম ইমেইল দেবে। যা দিয়ে আপনি যেকোনো সাইট ইমেইল verify করতে পারবে।

Fake Mail Generator http://www.fakemailgenerator.com/
FilzMail http://filzmail.com/
Email-fake http://en.email-fake.com/
10 Minute Mail https://10minutemail.net/
Mailinator http://mailinator.com/
MailDrop http://maildrop.cc/
ThrowAwayMail http://www.throwawaymail.com/

৭.ইউটিউব দিয়ে অ্যানিমেটেড GIFs তৈরি করুন।

আপনি কি জানেন যে আপনার পছন্দসই ইউটিউব ভিডিও থেকে অ্যানিমেটেড জিআইএফ তৈরির সহজ উপায় আছে? শুধু ইউটিউবে নেভিগেট করুন, এবং যে ভিডিওটি আপনি একটি অ্যানিমেটেড জিআইএফ-এ পরিণত করতে চান ইউটিউবে আগে gif যুক্ত করুন (নীচে চিহ্নিত অংশ দেখুন)।

Convert A YouTube Video Into Animated GIFs
Convert A YouTube Video Into Animated GIFs

এরপর আপনি অবিলম্বে gifs.com এ পুনঃনির্দেশিত করা হবে এবং আপনার ভিডিও অ্যানিমেটেড gif রূপান্তরিত হচ্ছে দেখতে পাবেন।

Convert A YouTube Video Into Animated GIFs
Convert A YouTube Video Into Animated GIFs

৮. ছদ্মবেশ এবং বিন্দু পিছনে পাসওয়ার্ড লুকানো প্রকাশ করুন।

যখনই আপনি কোনও সাইটের লগইন করার জন্য আপনার পাসওয়ার্ড টাইপ করবেন, তখন আপনি দেখতে পাবেন আপনার পাসওয়ার্ডটি আস্টেরিক্স বা বিন্দুগুলির পিছনে লুকানো আছে, কিন্তু যদি আপনি এটি প্রকাশ করতে চান (কেবল সাময়িকভাবে) তাহলে নিচের সহজ ধাপগুলো অনুসরণ করুন:
শুধু পাসওয়ার্ড ক্ষেত্রের উপর ডান-ক্লিক করুন, “Inspect Element” (ক্রোম ও ফায়ারফক্স) এ ক্লিক করুন।

আপনি HTML কোডটি দেখতে পাবেন যা ওয়েবসাইটটি তৈরি করেছে। আপনি কিছু type=”password” দেখতে পাবেন। এবং একবার আপনি “password” ক্লিক করুন ডবল ক্লিক করুন আপনি এই ক্ষেত্র সম্পাদনা করতে সক্ষম হবেন।

এখন শুধু শব্দ “password” শব্দ প্রতিস্থাপন করুন “text” বা “char” এবং আপনি সব সম্পন্ন কাজ শেষ। এখন দেখতে পারবেন যে ডটগুলো সরে গেছে এবং আপনি যে পাসওয়ার্ডটি দিয়েছিলেন সেগুলো এসে গেছে।

৯. একটি অদৃশ্য ফোল্ডার তৈরি করুন।

কিভাবে একটি অদৃশ্য ফোল্ডার তৈরি করবেন? এটা ঠিক, সম্পূর্ণ অদৃশ্য- ফাঁকা নাম এবং কোন ফোল্ডার আইকন নেই।
১. একটি নতুন ফোল্ডার তৈরি করুন। ফাইলের নাম মুছে দিন এবং Alt + 255 চাপুন (আপনার নোটপ্যাড থেকে)। তাহলে দেখবেন আপনার নাম ছাড়া ফোল্ডার তৈরি হয়ে যাবে।
২.এখন, আপনার নামহীন ফোল্ডার আইকন পরিবর্তন করুন- পরিবর্তন আইকন ট্রেতে অদৃশ্য আইকন পরিবর্তন করুন। এরজন্য আপনার নামহীন ফোল্ডার এর উপর রাইট-ক্লিক> properties> Customige> Change Icon এ ক্লিক করুন। এরপর এইখানে আপনি কোথাও খালি জায়গা দেখতে পারবেন।সেটি হল একটি অদৃশ্য icon ওইটার উপর ক্লিক করে ok করে apply করুন। তাহলে আপনার ফোল্ডার অদৃশ্য হয়ে যাবে।

১০. আপনার ফেসবুক ডেটা একটি কপি ডাউনলোড করুন।

শেষ কিন্তু অন্তত নয় আপনি যদি আপনার সমস্ত ফেসবুক ডেটা (আপনার অতীতের চ্যাট কথোপকথন, আপলোড করা ফটো, শেয়ার, স্ট্যাটাস আপডেট ইত্যাদি) অফলাইনে অ্যাক্সেস করতে চান তবে আপনি এটি করতে পারেন, পিডিএফ ফরম্যাটে আপনার সমস্ত ডেটা এবং কার্যক্রম ডাউনলোড করতে পারবেন। আপনার নিজের ফেইসবুক ডাটা ডাউনলোড করতে আপনার যা করতে হবে।
১.প্রথমে আপনার ফেসবুকের Setting> General Account Settings এ যাওয়ার পর আপনি দেখতে        পারবেন “Download a copy” নাম এর একটি অপশন আছে।

২.এখন আপনাকে “Download Your Information” নাম এর পেজে রিডাইরেক্ট করা হবে।

৩. “Start My Archive” এ ক্লিক করুন এবং এটি নিশ্চিতকরণের জন্য আপনার ফেসবুক পাসওয়ার্ড জিজ্ঞাসা করবে। আপনার পাসওয়ার্ড লিখুন এবং Submit ক্লিক করুন

৪. তারা আপনার ব্যক্তিগত আর্কাইভ তৈরি করবে যা আপনি ফেসবুকে শেয়ার করেছেন এবং এটি প্রস্তুত হলে আপনাকে ইমেল করবে এবং সেখানে আপনি এটি শেখান থেকে ডাউনলোড করতে পারবেন।

About the author

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *