কম্পিউটারের ৮ টি ধরন – সুপার কম্পিউটার !!!

বন্ধু কম্পিউটার তো আপনারা সবাই কখনো না কখনো ব্যবহার করেছেন। আমার মনে আছে, আমি আমার কম্পিউটার চালানো শিখেছিলাম একমাত্র GTA Vice City খেলার জন্য আর তখন আমি মনে করতাম পৃথিবীর সব কম্পিউটার এক রকমই হয়। কিন্তু এখন আস্তে আস্তে জানতে পারলাম কম্পিউটার নানা রকম হয়। হ্যালো” প্রিয়” রিডার! আপনাদের সবাইকে TechZoa.com এ স্বাগতম। আপনারা তো ডেস্কটপ কম্পিউটার এর সাথে পরিচিতি কিন্তু, আজকে এই পোস্ট এ আমি আপনাদের সাথে আলোচনা করবো 8 রকম কম্পিউটার নিয়ে।

কম্পিউটারের ৮ টি ধরন।

১.(পিসি) পার্সোনাল কম্পিউটার।

এই পিসি ওয়ার্ড টি হয়তো আপনি কতবার শুনেছেন। PC মানে personal computer (ব্যক্তিগত কম্পিউটার)। এখন আমরা বেশিরভাগ মানুষ ভাবেন যে যে কম্পিউটারে উইন্ডোজ আছে তাকে পিসি বলা হয় এবং ম্যাক (mac) আলাদা জিনিস বা ম্যাক এর অপারেটিং সিস্টেম গুলি পিসি না। তো বন্দুরা এইখানে পিসির মানে পার্সোনাল কম্পিউটার যেটি একজন এর প্রয়োজন কে পুরো করে। তো এইখানে ম্যাক ও পিসি এর অংশ এবং উইন্ডোস ও পিসি এর অংশ। তাহলে আপনারা বুঝেই গেছেন যে পিসি মানে একজন এর ব্যাক্তিগত কম্পিউটার।

এখন পিসি হয় 3 ধরনের।

  1. Desktop
  2. Laptop
  3. Net book

#১.desktop যেটি আপনি আপনার কোনো ডেস্ক এর উপর রেখেছেন। যেখানে আপনার কম্পিউটার কেবিনেট, মনিটর, কিবোর্ড, মাউস ইত্যাদি এগুলো হল আপনার পিসির অংশ । এখানে আপনি কোন পোর্টেবিলিটি পাবেন না। কিন্তু এখানে আপনি একটু ভাল স্পীড পাবেন। কারণ সাইজ অনেক বড় হবার কারনে আপনি আরো উন্নত উপাদান লাগাতে পারবেন। আপনি বলো স্পিড এবং আরো বলো করে কাজ করতে পারবেন। কিন্তু আপনি আইটির আপনি কোনো জায়গায় সহজে নিতে পারবেন না।

laptop

#২.Laptop কে আমরা নোটবুক ও বলে থাকি। এইখানে ল্যাপটপ আপনার ডেস্কটপ এর মত শক্তিশালী তো নয়। কিন্তু আপনি এটি সহজে বহন করতে পারবেন। ল্যাপটপ ব্যাটারিতে চলার কারণে তার কম্পোনেন্ট গুলি বেশি শক্তিশালী হয় না। কিন্তু একটি বহনযোগ্য হওয়ায় কারণে আজকের সময় এটি অনেক জনপ্রিয়।

 

#3.net book হলো ল্যাপটপ এর ছোট ভাই😜। যে রকম এটার সাইজ ও ছোট তেমনই এটার পাওয়ার খুবই কম। এখন এইগুলি সহজে দেখা যায়না। এইগুলি একদম বেসিক কাজ করার জন্য তৈরি করা হয়েছিল। যেমন: MS Word এ কাজ করা বা ইন্টারনেট ব্রাউজ করা। কিন্তু আমি বলে রাখি এইটির ল্যাপটপ এর থেকে ও বেশি চার্জ থাকতো।

২. ওয়ার্কস্টেশন (Workstation)

ওয়ার্কস্টেশন এবং ডেস্কটপ প্রায় একই রকম। কিন্তু এটি ডেস্কটপ এর মোকাবেলায় আরো অনেক শক্তিশালী হয়। এগুলো ব্যবহার করা হয় কোন নির্দারিত কাজ করার জন্য। যেমন 3D গ্রাফিক ডিসাইন, অনিমেশনস তো এই কাজ এর জন্য নির্দিষ্ট কম্পিউটার বা ওয়ার্কস্টেশন তৈরি করা হয়।

৩.Server

সার্ভার হলো এমন একটি কম্পিউটার যা অন্য কম্পিউটার গুলোকে ডাটা প্রদান করে থাকে। আমরা যে ওয়েব সার্ফ করি বা ইউটুবে,ফেইসবুক ইত্যাদি ওয়েবসাইট গুলো এইখানে হোস্ট করা বা রাখা হয়। এগুলো সাধারণ কম্পিউটারের চে অনেক শক্তিশালী হয়। কারণ এইগুলোর RAM, Processor এগুলো অনেক শক্তিশালী হয়। এই কম্পিউটার গুলো পুরো একটি গড় এর সমান।

৪.পার্সোনাল ডিজিটাল অ্যাসিস্ট্যান্ট (PDA)

এগুলো এখন সাধারণতো ব্যবহার করা হয় না। অতীত এ এগুলো পকেট কম্পিউটার হিসাবে ব্যবহার করা হতো। এই গুলোর জন্য PDA ব্যবহার করা হয়। এগুলো ছিল আগের এক ধরনের কম্পিউটার।

৫.Mainframe Computer

মেইনফ্রেম কম্পিউটারগুলি মূলত গুরুত্বপূর্ণ অ্যাপ্লিকেশনের জন্য বৃহৎ সংস্থার দ্বারা ব্যবহৃত কম্পিউটার; ডাটা প্রসেসিং, ইন্ডাস্ট্রি এবং কনসিউমার স্ট্যাটিসটিক্স, এন্টারপ্রাইস রিসোর্সে প্ল্যানিং; এবং ট্রানসাকশান প্রসেসিং এসব কাজ এর জন্য মেইনফ্রেম কম্পিউটার ব্যবহার করা হয়। এগুলো বড় এবং কম্পিউটারের কিছু অন্যান্য ক্লাসের তুলনায় আরো বেশি প্রসেসিং ক্ষমতা রয়েছে: মিনিকম্পিউটার, সার্ভার, ওয়ার্কস্টেশন এবং ব্যক্তিগত কম্পিউটার থেকে বেশি।

৬.Super Computer

একটি সুপার কম্পিউটার যা বর্তমানে সর্বোচ্চ বেশি শক্তিশালী কম্পিউটার। মহাকাশযন্ত্রগুলি বৈজ্ঞানিক ও প্রকৌশল অ্যাপ্লিকেশনের জন্য ব্যবহার করা হয়েছে। যা খুব বড় ডেটাবেসগুলি পরিচালনা করতে পারে বা একটি বিশাল পরিমাণ গণনা করতে পারে খুব সহজেই। গণিতজ্ঞের ক্ষেত্রে সুপার কম্পিউটারগুলি একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এগুলো এখন কারো ডেস্কটপ কম্পিউটারের চেয়ে  অনেক বেশি শক্তিশালী। আর আপনাকে বলে রাখি সুপার কম্পিউটার এ গেম প্লে করা যাই না😜।

৭.Wearable computers

Wearable computers, এগুলো হতে পারে আপনার স্মার্ট ওয়াচ, ফিটনেস ব্যান্ড বা আপনার পোশাক এর অঙ্কস। এগুলো আপনাকে নানান রকম বেসিক কাজ করে থাকে। যেমন ফিটনেস ব্যান্ড আপনার শরীরকে ট্র্যাক করে।

৮. SmartPhone

একটি স্মার্টফোন একটি মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম এবং ভয়েস, এসএমএস এবং ইন্টারনেট ডেটা যোগাযোগের জন্য একটি সমন্বিত মোবাইল ব্রডব্যান্ড সেলুলার নেটওয়ার্ক সংযোগ সহ একটি হ্যান্ডহেল্ড ব্যক্তিগত কম্পিউটার। একটি পিসি এর মতো কিন্তু এটি পিসি এর পরিমাপ এ অনেক ছোট এবং বহন করা সহজ। এটি পিসি এর মতো শক্তিশালী না কিন্তু এইটা আপনার পার্সোনাল কাজ সহজেই করতে পারবে।


আবার আসব কোন নতুন টপিক নিয়ে। সেই পর্যন্ত আমাদের সাথে কানেক্টেড থাকুন এবং আমাদের পোস্টগুলো শেয়ার করতে ভুলবেন না। কোন কিছু জানার থাকলে কমেন্টে প্রশ্ন করবেন। সেই পর্যন্ত ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন।

About the author

One Comment

  1. aksh khan May 18, 2018 Reply

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *